সর্দি কাশি দূর করার উপায় Best 10 টি ঘরোয়া উপায় জেনে নিন

সর্দি কাশি দূর করার উপায়ঃ Best 10 টি ঘরোয়া উপায়ে সর্দি-কাশি নিরাময়


সর্দি কাশি দূর করার উপায় ,বাচ্চাদের সর্দি কাশি দূর করার উপায় বা কি, সর্দি – কাশি এ রোগটি সবারই হয়েছে, ঠান্ডা লাগলে গলায় খুশখুশে ভাব, নাক-চোখ দিয়ে পানি পড়া, মাথা ভার হয়ে থাকে এবং বিরক্তিকর লাগে । প্রাকৃতিক ভাবে সর্দি কাশি দূর করার উপায় সবচেয়ে ভালো মাধ্যম। সাধারণত সর্দি-কাশিতে কমপক্ষে এক সপ্তাহ পুরো নাজেহাল অবস্থা হয়ে থাকে। প্রাকৃতিক ভাবে সর্দি কাশি দুর করার উপায় রয়েছে অনেক। সর্দি- কাশি তে ঔষুধপত্র তেমন কাজ করে না । কারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে কাজ করার মত কার্যকর ঔষুধ তেমন নেই। ঠান্ডা কিংবা সাধারণ সর্দি কাশি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য কিছু প্রাকৃতিক নিয়ম সর্দি কাশি দূর করার উপায় গুলো নিম্নে দেওয়া হলো।

 ➡ সর্দি কাশি দূর করার উপায় গুলো


এখন আমরা সর্দি কাশি দূর করার উপায় গুলো এক এক করে জেনে নেব। চলুন শুরু করা যাক।

 💡 তুলসী পাতাঃ

জ্বর, সর্দি, ব্রস্কাইটিস, গলা বেথা, ম্যালেরিয়া এবং আরো অনেক রোগের উপশমকারী উপদান হিসেবে তুলসী পাতার রস খুবই উপকারী। তুলসী পাতাতে আছে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টিবায়েটিক ইত্যাদি উপাদান রয়েছে। কয়েকটি তুলসী পাতা ধুয়ে নিন, গরম পানিতে কিছুক্ষন ফোটান তারপর এক কাপ করে প্রতিদিন খান দেখবেন আপনার সর্দি- কাশি আর থাকবে না।

 💡 রসুনঃ

রসুন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলে। ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধি ও প্রতিরোধে সাহায্য করে থাকে।দুই তিন টুকরো রসুন প্রতিদিন নিয়মিত খান। গলা খুশখুশ করলে মুখে লবঙ্গ রাখতে পারেন তাতে গলায় আরাম পাবেন।

 💡 ফুটন্ত পানিঃ

অল্প পরিমানে পানি নিয়ে তার সাথে দারুচিনি, মধু, লবঙ্গ, গোলমরিচ, থেতো করা তুলসী পাতা ও আদা দিয়ে ভালো করে ফোটিয়ে নিন। হালকা গরম অবস্থায় বার বার চুমুক দিয়ে খান। তাতে সর্দি ভেতর থেকে বেরিয়ে যাবে এবং গলাব্যেঅথা থাকলে তাও কমে যাবে।

 💡 আদাঃ

রসুনের মত আদাও একটি ঘরোয়া উপাদান। আদাও অনেক রকমের রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে থাকে। জ্বর কমানের জন্য এক কাপ আদার রসের সাথে মধু মিশিয়ে খান দেখবেন সাথে সাথেই জ্বর কমে যাবে।

 💡 লেবুঃ

কাশি হলে অর্ধেক লেবুর ওপর গোল মরিচ আর লবণ ছিটিয়ে খেয়ে ফেলুন। কাশি কমে যাবে।

 💡 গোল মরিচের চাঃ

দেড় কাপ পানিতে একচামচ কালো গোল মরিচের গুড়ো ও ২ চামচ মধু মিশিয়ে ১৫ মিনিট সেদ্ধ করে নিন। তারপর ছেঁকে পান করুণ দেখবেন আপনার কফযুক্ত কাশি একদম সেরে গেছে । তবে এ প্রক্রিয়া শুকনো কাশির বেলাই প্রযোজ্য হবে না।

 💡 মধুঃ

ঘুমাতে যাওয়ার আগে গরম দুধের সাথে এক চামচ মধু মিশিয়ে খেয়ে নিন । দেখবেন সারা রাত যে কাশির যন্ত্রনা ছিলো তা আর থাকবে না । তাছাড়া কাশি দূর করার জন্য আঙ্গুরের রসের সাথে মধু মিশিয়ে খেলে উপকারে আসে।

 💡 হলুদঃ

কবিরাজেরা প্রাচিনকাল থেকেই রোগ সারানোর জন্য অ্যান্টিবায়োটিক হিসেবে ব্যাবহার করে আসছে। এক গ্লাস গরম দুধের সাথে আধ চামচ হলুদ মিশিয়ে খেয়ে নিতে পারলেই কাশি কমে যাবে।

 💡 লবঙ্গঃ

কয়েক টুকরা লবঙ্গ সেদ্ধ পানিতে সামান্য লবণ মিশেয়ে কুসুম গরম থাকতেই খেয়ে নিন। এটি খুবই উপকারী। এছাড়া লবঙ্গ ও আদা পানিতে ১৫ মিনিট সেদ্ধ করে সেই পানি দিয়ে গড়গড়া করলেও কাশি থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

 💡 পিয়াজের রসঃ

পিয়াজের রস যে কাশি কমাতে সাহায্য করে এ কথা অনেকেরই অজানা। পিয়াজের রসের সাথে একটু মধু মিশিয়ে খেয়ে নিন । দেখবেন আপনার কাশি একটু হলেও কমবে।

এগুলোই সর্দি কাশি দূর করার উপায় যা আপনি ঘরোয়া উপায়ে করতে পারেন। প্রয়োজনে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

আরও এইরকম স্বাস্থ্য টিপস পেতে এখানে ক্লিক করুন।

 ➡ বাচ্চাদের সর্দি কাশি দূর করার উপায়


ছোট বাচ্চাদের প্রায়  সর্দি-কাশির সারাবছর লেগেই থাকে। শুধু ঠাণ্ডা লেগেই যে শিশুদের সর্দি কাশি হয় তা নয়, অন্য অনেক কারণেই শিশুদের সর্দি-কাশি হতে পারে। সর্দি কাশির চিকিৎসায় আমরা অ্যান্টিবায়োটিক প্রয়োগ এখন অনেক বেশি মাত্রায় করছি যার সাইট এফেক্ট অনেক । তাই আমরা খুঁজি প্রাকৃতিক সমাধান। আজকে তাই জেনে নিন বাচ্চাদের সর্দি কাশি দূর করার উপায় ।

বাচ্চাদের সর্দি কাশি দূর করার উপায়

 💡 লেবু ও মধুঃ

লেবু জলে ১ চা চামচ মধু মিশিয়ে বাচ্চাদের খাওয়ালে শ্বাসযন্ত্রের ব্যাকটিরিয়া ধ্বংস করে, বুক থেকে কফ দূর করে ।

 💡 দুধ ও হলুদঃ
হলুদে অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল গুণ রয়েছে। বাচ্চাদের তাই সর্দি-কাশি সারাতে দুধের সাথে হলুদ মিশিয়ে খাওয়াতে পারেন। এক গ্লাস গরম দুধে আধ চা চামচ হলুদ মিশিয়ে খাওয়ান।

 💡 মিশ্রিঃ
সর্দি-কাশি নিরামইয়ে মিশ্রির গুরুত্ব অনেক। শিশুদের তাই সর্দি-কাশি থেকে দূরে রাখতে নিইয়মিত মিশ্রির জল খাওয়ান।

 💡 সরিষার তেল ও রসুন
সরিষার তেল গরম করে তার মধ্যে অল্প করে রসুন থেঁতো করে মিশিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ। এরপর এই তৈল মিশ্রন দিয়ে শিশুদের গলা, বুক, পিঠ, হাতের তালু ও পায়ের পাতা মালিশ করুন।বাচ্চাদের সর্দি কাশি দূর করার উপায় গুলোর মধ্যে এটি একটি ভালো উপায়।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x